উস্কানিমূলক বক্তব্য

উস্কানিমূলক বক্তব্য দিলে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা- রাজারহাট বিডি

।। নিউজ ডেস্ক ।।
ওয়াজ মাহফিলে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিলে বক্তার পাশাপাশি আয়োজকদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

শীত আসার সঙ্গে সঙ্গেই সারা দেশে শুরু হয় ওয়াজ মাহফিল বা ইসলামী জলসা। তবে এসব মাহফিল থেকে ধর্মীয় উস্কানির অভিযোগ উঠেছে। এমনকি সরকার বিরোধী প্রচারণারও অভিযোগ উঠেছে। তাই কোনো ইসলামী জলসা বা ওয়াজ মাহফিলে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হলে সেই বক্তার পাশাপাশি আয়োজকদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

রবিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। ইসলামী জলসা ও মাহফিলে ধর্মীয় উসকানি ও সরকারবিরোধী প্রচারণা নিয়ে উদ্বেগ করে সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। ফলে ধর্মীয় উসকানি বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

কমিটির সূত্র জানায়, বৈঠক শেষে সারা দেশে ইসলামী জলসার নামে উস্কানিমূলক বক্তব্য ও প্রচারণা বন্ধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। এর আগে কমিটির সদস্যরা দেশের বিভিন্ন স্থানে উস্কানিমূলক ঘটনা তুলে ধরে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বৈঠকে ওয়াজ মাহফিলে ধর্মীয় জলসা আয়োজনে স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি বাধ্যতামূলক করা এবং রাত ১১টার পর কোনো জলসা না রাখার পরামর্শ দেয়া হয়। এছাড়া কোনো জলসায় উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হলে সেই বক্তার পাশাপাশি আয়োজকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

সংসদীয় কমিটির সভাপতি মো. হাফেজ রুহুল আমীন মাদানির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, জিন্নাতুল বাকিয়া, তাহমিনা বেগম, রত্না আহমেদসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্রঃ dbcnews